Welcome To Sundarban TV ||সুন্দরবন টিভিতে আপনাকে স্বাগত || সুন্দরবন টিভি সুন্দরবনের মানুষের জীবন কথা

ক্যানিং মহকুমা জুড়ে ঘরে ফিরতেই ১০০ দিনের কাজ পেল পরিযায়ী শ্রমিকরা

ক্যানিং মহকুমা জুড়ে ঘরে ফিরতেই ১০০ দিনের কাজ পেল পরিযায়ী শ্রমিকরা

ক্যানিং|রবিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুন্দরবনের ক্যানিং মহকুমা জুড়ে ঘরে ফিরতেই এমজিএনআরইজিএ প্রকল্পে ১০০ দিনের কাজ ফেল পরিযায়ী শ্রমিকরা প্রশাসনের উদ্যোগে।এদিন ক্যানিং মহকুমা ক্যানিং-১ বিডিও নীলাদ্রিশেখর দে,গোসাবা বিডিও সৌরভ মিত্র, ক্যানিং-২ বিডিও প্রনব মন্ডল,বাসন্তী বিডিও সৌগত সাহার উদ্যোগে পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ঘরে গিয়ে খোঁজ  বের করে তাদের দেওয়া হয় ১০০ দিনের কাজ।তবে সরকারি ভাবে যে পরিযায়ী শ্রমিকরা ঘরে ফিরেছে এবং যে সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকরা নিজেরাই ঘরে ফিরে এসেছে তারাই এই ১০০ দিনের কাজ পেয়ে খুবই খুশি।

ইতিমধ্যে ক্যানিং-১ ব্লকে ৪৮৯ জন,বাসন্তী ব্লকে ১৬৫ জন,ক্যানিং-২ ব্লকে ২৭৭ জন,গোসাবা ব্লকে ৩১৩ জন পরিযায়ী শ্রমিক ১০০ দিনের কাজ শুরু করেছে।আর এই সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে যাদের জব কার্ড নেই তাদের দ্রুততার সাথে জব কার্ড করে দেওয়া প্রশাসনের উদ্যোগে।রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কড়া নির্দেশ দেন পরিযায়ী শ্রমিকদের ১০০ দিনের কাজে নিযুক্ত করার জন্য।আর এই নির্দেশ পেয়ে কোমড় বেঁধে কাজে নেমে পড়েন প্রশাসনের আধিকারিক থেকে শুরু করে অফিসাররা।এদিকে পরিযায়ী শ্রমিকরা ১০০ দিনের কাজে বৃক্ষরোপণ,নদী বাঁধ সংস্কার,মাটি কাটা, পুকুর,খাল খননের কাজ করছে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে।এমনকি হাতে স্যানিটেশন করে মুখে মাক্স লাগিয়ে কাজ করছে তারা।এদের মধ্যে পুরুষ ও মহিলা উভয়ই কাজ করছে এই ১০০ দিনের কাজে।

পাশাপাশি ঘূর্ণিঝড় আমফান বিষয়ে প্রতিবেশীদের সতর্ক করে তুলছে এই সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকরা ১০০ দিনের কাজে।এ বিষয়ে জেলা প্রশাসন জানান যে সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকরা ঘরে ফিরেছে তাদের ঘর থেকে খুঁজে বের করে এমজিএনআরইজিএ প্রকল্পে ১০০ দিনের কাজ দেওয়া হচ্ছে।আর এই কাজ জেলার বিভিন্ন ব্লকে শুরু হয়ছে।এমনকি এই সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের দিয়ে প্রতিবেশীদের সতর্ক করা হচ্ছে ঘূর্ণিঝড় আমফান বিষয়ে।এ বিষয়ে রাজ্যের সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী মন্টুরাম পাখিরা বলেন পরিযায়ী শ্রমিকরা যাতে কাজ পায় তার জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।ইতিমধ্যে এই সমস্ত শ্রমিকরা ১০০ দিনের কাজে কাজ শুরু করেছে বিভিন্ন ব্লক গুলিতে।ফলে উপকৃত হবে এই সমস্ত শ্রমিকরা।

Post a Comment

0 Comments